Use of different colour helmets

আমরা দৈনন্দিন জীবনে  বিভিন্ন রঙের হেলমেট দেখতে পাই । কিন্তু অনেকেই জানিনা কোন হেলমেট কোন কাজের জন্য ব্যবহৃত হয় । ভারত সরকার বিভিন্ন রঙের হেলমেট এর জন্য কালার কোড নির্ধারন করেছে । পেশাগত স্বাস্থ্য এবং নিরাপত্তা প্রশাসন, একটি সরকারী সংস্থা যা দুর্ঘটনা বহুল এলাকায় কর্মরত কর্মীদের কাজের নিরাপত্তা প্রদান করে । এই সংস্থার নির্দেশিকা অনুযায়ী হেলমেট এর কোন রঙ নির্ধারন করা নেই, কিন্তু তবুও কিছু আলাদা রঙের হেলমেট এর সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হল যা নিম্নে বর্ণিত করা হয়েছে –

১. সাদা রঙের সেফটি হেলমেট : সাদা রঙ কে সহজেই অন্যান্য রঙের বস্তুর থেকে পৃথক করা যায় । এই কারণে এই রঙের হেলমেট সাধারনত বিভিন্ন পদে আসীন কর্মকর্তারা ব্যাবহার করে থাকেন। উদাহরণস্বরূপ, ম্যানেজার, আর্কিটেক্ট, ইন্ঞ্জিনিয়ার প্রভৃতি পেশার লোকেরা অনসাইট কাজ করার জন্য এই হেলমেট ব্যাবহার করে থাকেন।

২. সবুজ রঙের সেফটি হেলমেট: এই রঙের হেলমেট সাধারনত বিভিন্ন সাইটে কর্মরত সেফটি অফিসাররা ব্যাবহার করে থাকেন । এছাড়া নতুন কোন প্রশিক্ষণার্থীরা কাজে যোগ দিলেও ব্যাবহার করতে পারে।

৩. হলুদ রঙের সেফটি হেলমেট: ভারী কাজের সাথে যুক্ত কর্মীরা সাধারনত এই রঙের হেলমেট ব্যাবহার করে থাকেন। এমনকি কন্সট্রাকশান কাজের সাথে যুক্ত লেবাররাও এই হেলমেট গুলো পড়ে থাকেন।

৪. বাদামি রঙের সেফটি হেলমেট: উচ্চ তাপমাত্রায় বা ঝালাইয়ের কাজে নিযুক্ত কর্মীরা এই রঙের হেলমেট পড়ে ধকেন।

৫. কমলা রঙের সেফটি হেলমেট: যেহেতু কমলা রঙের হেলমেট সহজেই চোখে পড়ে এই কারণে এই হেলমেট গুলি মূলত বিভিন্ন ধরনের রাস্তার কাজের শ্রমিকরা ব্যাবহার করেন।

৬. নীল রঙের সেফটি হেলমেট: ইলেকট্রিশিয়ান এবং কাঠমিস্ত্রী রা নীল রঙের সেফটি হেলমেট ব্যাবহার করেন।

৭. লাল রঙের সেফটি হেলমেট: ইমার্জেন্সি কাজের সঙ্গে জড়িত লোকের সাধারনত লাল রঙের সেফটি হেলমেট ব্যাবহার করে থাকেন। যেহেতু দমকলকর্মী রা আগুন নেভানোর মত জরুরী পরিস্থিতির সাথে জড়িত, তাই সাধারনত দমকল কর্মীরা লাল রঙের হেলমেট ব্যবর করেন।

৮. ধুসর রঙের সেফটি হেলমেট: কর্মস্থলে দর্শনার্থীরা এই রঙের হেলমেট ব্যাবহার করেন।

৯. গোলাপী রঙের সেফটি হেলমেট: এই রঙের হেলমেট গুলো মহিলা কর্মীদের মধ্যে খুবই জনপ্রিয়। কিছু কিছু কোম্পানীতে গোলাপী রঙের হেলমেট, অতিরিক্ত হিসেবে রেখে দেওয়া হয়, যাতে কেউ নিজের হেলমেট বাড়িতে ছেড়ে আসলে ব্যাবহার করতে পারেন।