এই বিখ্যাত ব্রান্ডগুলির প্রথমের প্রোডাক্ট ছিল পেন, সাবান, সব্জি, ট্রাক্টর ইত্যাদি

সারা বিশ্বব্যাপী এমন অনেক বিখ্যাত কোম্পানী রয়েছে যারা তাদের বর্তমান প্রোডাক্টে সাফল্য পাওয়ার আগে বিভিন্ন পণ্য উত্পাদন করেছিল। আজ আমরা ঠিক এরকমই কয়েক বিখ্যাত ব্র্যান্ডের সম্পর্কে জানার চেষ্টা করব। উদাহরণস্বরূপ, টয়োটা, একটি সুপরিচিত অটোমেকার, পূর্বে তাঁত শিল্পে কাজ করত। অনুরূপ, নোকিয়া, একটি স্বীকৃত স্মার্টফোন নির্মাতা ব্র্যান্ড প্রথমদিকে টয়লেট পেপার তৈরি করত। এখানে সুপরিচিত ব্র্যান্ডের প্রথম দিকের আইটেম সম্পর্কে আরও জানতে পড়া চালিয়ে যান।

১.নোকিয়া (Nokia):

নোকিয়া, একটি কোম্পানী যা তার স্বীকৃত এবং চমৎকার ফোনের জন্য সবচেয়ে বেশি পরিচিত, কাগজ এবং রাবার পণ্যের পাশাপাশি বৈদ্যুতিক তার সহ বিভিন্ন আইটেম নিয়ে বাজারে প্রবেশ করেছে। কোম্পানির প্রাথমিক আইটেম ছিল টয়লেট পেপার

২. ল্যাম্বরগিনি (Lamborghini):

স্পোর্টস কার বিক্রির আগে ট্রাক্টর উৎপাদন ছিল ল্যাম্বরগিনির প্রাথমিক ব্যবসা। ফেরারির প্রতিষ্ঠাতা ফেরুসিও যখন ল্যাম্বরগিনিকে বলেছিলেন, “আপনি একটি ট্রাক্টর চালাতে সক্ষম হতে পারেন, কিন্তু আপনি কখনই একটি ফেরারি সঠিকভাবে চালাতে পারবেন না,” এটি একটি টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে চিহ্নিত হয়। সেই সময় থেকে, ল্যাম্বরগিনি শুধুমাত্র তার অটোমোবাইলের জন্য পরিচিত।

৩. এলজি (LG):

এলজি একটি ইলেক্ট্রনিক্স ম্যানুফ্যাক্চারিং কোম্পানী হিসেবে সুপরিচিতি লাভ করার আগে বিভিন্ন কসমেটিক্সের পণ্য উত্পাদন করত। উপরন্তু, টুথপেস্ট এবং অন্যান্য গৃহস্থালী সামগ্রী এর মাধ্যমে বিক্রি হয়।

৪. কোলগেট (Colgate):

1806 সালে যখন কোলগেট প্রতিষ্ঠিত হয়, তখন এটি মোমবাতি এবং সাবান সরবরাহ করত। ৬৭ বছর ধরে চলার পর টুথপেস্ট বিক্রির ব্যবসা শুরু করে।

৫. নাইকি (Nike):

নাইকি যখন ব্যবসা শুরু করে তখন এর প্রাথমিক পণ্য ছিল নীল রঙের ফিতা। কিন্তু বর্তমানে নাইকির জুতো থেকে শুরু করে বিভিন্ন পোশাক ক্রীড়াবিদদের মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

৬. সোনি (Sony):

সোনি বিশ্বব্যাপী একটি সুপরিচিত জাপানি সংস্থা। বৈদ্যুতিক রাইস কুকার বিক্রির মাধ্যমে এর উদ্যোগ শুরু হয়েছিল। সোনি কোম্পানী তার ব্যবসা  ১৯৪৬ সালে প্রতিষ্ঠিত করে এবং বর্তমানে এটি একটি অন্যতম বিখ্যাত প্রযুক্তিগত কোম্পানী।

৭. নিন্টেন্ডো (Nintendo): 

নিন্টেন্ডো একটি ‘প্লে কার্ড গেম’ প্রকাশের মাধ্যমে তাদের ব্যবসা শুরু করেছিল। নিন্টেন্ডো বর্তমানে ভিডিও গেম শিল্পে একটি ব্যাপকভাবে স্বীকৃত কোম্পানী। এর ব্যবসাটি ১৮৮৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

৮. স্যামসাং (Samsung):

স্যামসাং, স্মার্টফোন সেক্টরে একটি সুপরিচিত ব্র্যান্ড, ফল এবং সামুদ্রিক খাবার রপ্তানিকারক হিসাবে তার কর্মজীবন শুরু করে। এই কোরিয়ান কম্পনীটি ১৯৩৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

৯. টোয়োটা (Toyota):

জাপান ভিত্তিক অটোমোবাইল প্রস্তুতকারক টয়োটা বিশ্বের বৃহত্তম অটোমোবাইল নির্মাতাদের মধ্যে একটি। প্রতি বছর প্রায় ১০ মিলিয়ন যানবাহন উত্পাদন করে। ট্রাক্টর এবং অটোর সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ব্র্যান্ড হল টয়োটা। যাইহোক, এর আগে এটি তাঁত শিল্পের একটি সুপরিচিত উদ্ভাবক ছিল।

১০. ইকেয়া (Ikea):

একটি বহু-জাতীয় কর্পোরেশন এবং বাড়ির আসবাব সরবরাহকারী হলেও ইকেয়া তার প্রথমদিকের ব্যবসায় কলম বিক্রি শুরু করেছিল। ইকেয়া তার প্রাথমিক পর্যায়ে ক্রিসমাস কার্ড, ম্যাচ এবং ওয়ালেট বিক্রি করত।

এছাড়াও আরও অনেক বিখ্যাত কোম্পানী যেমন, Lego Toys – তাদের ব্যবসা শুরু করে সাধারণ খেলনা হাঁস তৈরি করে বিক্রি করার মাধ্যমে, Tiffany & Co. প্রথমে স্টেশনারী জিনিসপত্র বিক্রি করলেও বর্তমানে একটি বিখ্যাত বিলাসবহুল জুযেলারী সংস্থা।